“জনতা কারফিউ” এর দিন পশ্চিম বর্ধমানের আসানসোল শিল্পাঞ্চলে কার্যত বন্ধের চেহারা

বেঙ্গল মিরর, আসানসোল, ২২ শে মার্চ,২০২০, সৌরদীপ্ত সেনগুপ্ত: গতকাল থেকেই একটা আভাস পাওয়া গিয়েছিল সারা ভারতবর্ষে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা করা জনতা কারফিউ সফল হবে। এরই সঙ্গে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীও আবেদন করেন মানুষকে মারণ করোনা  ভাইরাস যাতে স্টেজ ৩ এর দিকে না যায় সেটির দিকে নজর দেওয়ার জন্যে। আর তারই প্রতিফলনের এক ঝলক দেখতে পাওয়া গেলো আসানসোল শিল্পাঞ্চলে।

riju advt

  সকাল ৯ টা ৩০  নাগাদ  আসানসোলের কেন্দ্রবিন্দু এটওয়াল মোড় সংলগ্ন মোড় শুনশান দেখতে পাওয়া যায়।
 সম্পূর্ণ রূপে বন্ধের চেহারা দেখতে পাওয়া যায়।

সমস্ত দোকানপাট বন্ধ দেখতে পাওয়া যায়।  কোনো অটো, টোটো, যানবাহন চলতে দেখা গেলনা। ট্রাফিক পুলিশ এবং সিভিক ভলান্টিয়ার দের মোড়ে মোড়ে দেখতে পাওয়া গেলেও যানবাহন একপ্রকার স্তব্ধ। ইতিউতি এক দুটি বাইক বা অটো দেখা গেলেও নাম মাত্র। ইমারজেন্সি হসপিটাল এর কর্মী এবং জরুরী পরিষেবা এবং অ্যাম্বুলেন্স দেখতে পাওয়া গেলো।

  আসানসোল মিনি বাস স্ট্যান্ডে বাস পরিষেবা বন্ধ দেখা যায় এবং সারি সারি মিনিবাস দাড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। বস্তুত: প্রশাসনের তরফ থেকে আন্ত: রাজ্য বাস পরিষেবা বন্ধ করা হয়েছে গতকাল রাত থেকেই এবং পশ্চিমবঙ্গ – ঝাড়খণ্ড বর্ডার কার্যত সিল করা হয়েছে।

  ডিউটি করতে থাকা  আসানসোল সাউথ ট্রাফিক গার্ড ও সি তাপস কুমার দুবে বলেন, ” আসানসোল শিল্পাঞ্চলে কোনো অপ্রীতিকর  পরিস্থিতির খবর পাওয়া যায়নি। এছাড়া আমাদের অফিসার এবং সিভিক কর্মীরা তাদের নির্দিষ্ট জায়গায় ডিউটি করছে। কোনরকম যানবাহন চেকিং এর সেরকম কোনো বিশেষ অর্ডার নেই। পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।”

   এদিকে ভীষণ জনবহুল বস্তিন বাজার একদমই শুনশান দেখতে পাওয়া যায়।
  আসানসোল বি এন আর মোড় সম্পূর্ণ জনশূন্য দেখতে পাওয়া যায়।

   এদিকে  সরকারি এস বি এস টি সি এর একটি বাস দেখতে পাওয়া যায় মাত্র দুজন যাত্রী নিয়ে কলকাতা অভিমুখী দিকে। বাসের ড্রাইভার কে এই বিষয়ে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, “জনতা কারফিউ” এর জন্যে মাত্র দুজন প্যাসেঞ্জার রয়েছেন, হয়ত মাঝে দুর্গাপুর সিটি সেন্টার বাস স্ট্যান্ডে আরো কিছু প্যাসেঞ্জার উঠবেন। ডিউটি তো করতেই হবে।”
 এদিকে  দূরপাল্লার ট্রেন পরিষেবা বন্ধ রয়েছে। শুধু লোকাল ট্রেন পরিষেবা কম সংখ্যায় চালু রয়েছে।
  মোটর ওপর সকাল ১০ টায় একপ্রকার বন্ধের চেহারা নিয়েছে সারা দেশের সঙ্গে আসানসোল শিল্পাঞ্চল যা করোনা এর মত মারণ ভাইরাস যাতে ছড়িয়ে না পড়ে জনমানসে তার জন্যে সদর্থক পদক্ষেপ সমগ্র শিল্পাঞ্চলের জনগণের।