ASANSOLASANSOL-BURNPURKULTI-BARAKAR

শিল্পাঞ্চল জুড়ে পদ্ম শিবিরের উচ্ছাস, আসানসোলে বিজেপির মিছিল আটকালো পুলিশ, উত্তেজনা

৪ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে দলের জয় , লাড্ডু খাওয়ানো থেকে আবীর খেল

বেঙ্গল মিরর, রাজা বন্দোপাধ্যায়, আসানসোল, ১০ মার্চঃ দেশের পাঁচ রাজ্যের বিধানসভার ফল ঘোষনা হয় বৃহস্পতিবার । একমাত্র পাঞ্জাব বাদ দিয়ে বাকি ৪ রাজ্য উত্তর প্রদেশ, মনিপুর , গোয়া ও উত্তরাখণ্ডে বিজেপির জয়জয়কার হয়েছে। বাংলায় জয় অধরা থাকলেও এদিন চার রাজ্যের দলের জয়ে আনন্দে মাতালেন বিজেপির নেতা, কর্মী ও সমর্থকরা।

BJP का विजय जुलूस


এদিন বিকেলে পশ্চিম বর্ধমান জেলার আসানসোল শহরে জিটি রোডের গীর্জা মোড় থেকে দলের জয়ে বিজয় মিছিলের আয়োজন করা হয়। দলের জেলা সভাপতি দিলীপ দে ও আসানসোল পুরনিগমের প্রাক্তন মেয়র জিতেন্দ্র তেওয়ারির নেতৃত্বে হওয়া এই মিছিল জিটি রোড হয়ে আসানসোল পুরনিগমের দিকে যাওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু আসানসোল দক্ষিণ থানার পুলিশ সেখানে পৌঁছে বিজেপি নেতাদের মিছিল করতে মানা করেন। তাতে এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। বিজেপির কর্মী ও সমর্থকেরা জোর করে মিছিল করতে চাইলে পুলিশ রাস্তায় মিছিল আটকাতে ব্যারিকেড করে দেয়। এতে উত্তেজনা আরো বেড়ে যায়। পুলিশ বলে, এই মিছিলের কোন অনুমতি নেই। এছাড়াও মাধ্যমিক পরীক্ষা চলছে। তাই এই মিছিল করা যাবে না। পুলিশের সঙ্গে জেলা সভাপতি ও প্রাক্তন মেয়রের কথা কাটাকাটি ও বচসা শুরু হয়।

বিজেপির কর্মী ও সমর্থকেরা তৃনমুল কংগ্রেস ও পুলিশের বিরুদ্ধে শ্লোগান দিতে থাকেন। বেশ কিছুক্ষুন ধরে মিছিল নিয়ে বিজেপি নেতা ও কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের টানাপোড়েন চলে। শেষ পর্যন্ত আসানসোল পুরনিগমের দিকে মিছিল করতে না পেরে, বিজেপির নেতা ও কর্মীরা উল্টো পথ বিএনআরের দিকে মিছিল করতে শুরু করেন। সেই মিছিল পুলিশ আর আটকাতে পারেনি।


এই প্রসঙ্গে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে দিলীপ দে ও জিতেন্দ্র তেওয়ারি বলেন, পুর ভোটের দিন পুলিশ দাঁড়িয়ে থেকে শাসক দলকে দিয়ে ভোট লুঠ করালো। আর এখন আমাদের বিজয় মিছিল আটকাতে এসেছে। আমরা জানি কি করে মিছিল করতে হয়। মানুষকে লাড্ডু খাওয়ানো হয়েছে।


এদিন সকালে দলের জয়ে আসানসোল বড় পোস্ট অফিস লাগোয়া বিজেপির কার্যালয়ে বিজেপির নেতা ও কর্মীরা আনন্দে মেতে উঠেন। আবীর খেলা, মিষ্টি মুখ করানোর পাশাপাশি পটকা ফাটানো হয়।

চরন মুখার্জী: এবারের পৌর নির্বাচনে রাজ্যজুড়ে বিজেপির ধরাশায়ী হওয়ার পর এবার চার রাজ্যের নির্বাচনে বিজেপির ব্যাপক জয় আরো একবার বিজেপির কর্মীদের অক্সিজেন দিল পশ্চিমবঙ্গে। বিজেপির জয় নিয়ে এমনই বিষয় লক্ষ্য করা গেলেও বৃহস্পতিবার। বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা এদিন আনন্দ উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়ল। খনি অঞ্চল রানীগঞ্জেও বিজেপির ব্যাপক জয়ের বিষয় লক্ষ্য করে বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা রানীগঞ্জ শহর এলাকায় বের করল বিজয় মিছিল। যদিও পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপে উচ্ছ্বাস মাঝপথে বন্ধ হল, বিজেপির বিজয় জুলুসের মাইক বাজিয়ে ডঙ্কা বাজানো, পটকা ফাটানোর প্রক্রিয়া,তবে সাময়িক উচ্ছ্বাস বন্ধ থাকলেও ফের রানীগঞ্জ শহরের প্রাণকেন্দ্র নেতাজি স্ট্যাচু এলাকায় আরো একবার উল্লাসে ডঙ্কা বাজিয়ে ফটকা ফাটিয়ে উচ্ছ্বসিত হলো বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা।

বৃহস্পতিবার বিকেলে এমনই বিষয় লক্ষ্য করা গেল রানীগঞ্জের স্টেশন সংলগ্ন এলাকা থেকে মিউনিসিপাল কর্পোরেশন হয়ে নেতাজি স্ট্যাচু মোড় এলাকায়। বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা গেরুয়া আবিরে একে অপরকে রাঙ্গিয়ে দিয়ে আরো একবার বুলডোজার সরকার নতুন ভারত গড়ার দায়িত্ব’ পেল বলেই জানান দিয়ে দাবি করলেন, এবার 2026 এর নির্বাচনে বিজেপি সরকার গড়বে, যেসকল নির্বাচন পশ্চিমবঙ্গে হয়েছে তা প্রহসনের নির্বাচন বলেই দাবি করলেন তারা। তাদের দাবি যেভাবে বুলডোজার বাবা মাফিয়া রাজ খতম করে তার রাজ্যে সুস্থ শাসন ব্যবস্থা গড়ে তুলেছে তা লক্ষ্য করে দিকে দিকে বিজেপিকে আশীর্বাদ করেছে আমজনতা। বৃহস্পতিবার এর এই বিজয় জুলুস কর্মসূচির বিশেষভাবে নেতৃত্ব দিতে দেখা যায় রানীগঞ্জ শহর মন্ডল এর সভাপতি রাজেশ মন্ডল, মদন ত্রিবেদী, সন্দীপ ঘোষ, শতাব্দি চ্যাটার্জী, গোপাল পারিক সহ বহু নেতৃস্থানীয়দের ।

নিয়ামতপুর BJP অফিসে উচ্ছাস ,নিয়ামতপুর থেকে নিউরোড পর্যন্ত মিছিল BJP কর্মী সমর্থকদের

কাজল মিত্র :-আজ বৃহস্পতিবার দেশের পাঁচ রাজ্যের বিধানসভার ফল ঘোসনার দিন । যেখানে
উত্তর প্রদেশ, মনিপুর , গোয়া ,উত্তরাখণ্ড ও পাঞ্জাব রাজ্যের বিধানসভা নির্বচনের ফল ঘোসনা করা হলো বা এখনও কয়েকটি আসনে কাউন্টিং চলছে ,তার মধ্যে সারা দেশের নজর ছিল উত্তর প্রদেশের নির্বচনে ফল কি হবে , শেষে পুনরায় রাজ্যে দখল করলো ভারতীয় জনতা পার্টি ,উত্তর প্রদেশের মুখ্য মন্ত্রী যোগী আতীত্য নাথ আবার উত্তর প্রদেশ দখল করতে সক্ষম হয়েছে এবং সাথে আরও তিন রাজ্যে সরকার গঠন করবে বিজেপি
এই আনন্দে মাতালেন বিজেপি কর্মী সমর্থকরা । দৃশ্যটি পশ্চিম বর্ধমান জেলার কুলটি বিধানসভা বিজেপির সেন্ট্রাল কার্যালয় নিয়ামতপুরে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা বাজি ফাটিয়ে , আবির খেলে মিস্টি মুখ করে উচ্ছাসে মাতালেন সাথে পার্টি কার্যালয় থেকে নিয়ামতপুর নিউ রোড পর্যন্ত মিছিল করা হলো

Leave a Reply