ASANSOL

আসানসোলে ৭৩ শতাংশের সামান্য বেশি ভোট পড়লো

২০১৪ ও ২০১৯ এর তুলনায় কম

বেঙ্গল মিরর, আসানসোল, রাজা বন্দোপাধ্যায়ঃ ২০১৪ ও ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের তুলনায় এবারে অনেকটাই কম ভোট পড়লো আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রে। নির্বাচন কমিশনের তরফে ভোট শেষ হওয়ার ২৪ ঘন্টা পরে যে তথ্য দেওয়া হয়েছে, তাতে দেখা যাচ্ছে আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রে এবারে ভোটের হার ৭৩.২৭ শতাংশ। ২০১৪ সালে আসানসোলে ভোটের হার ছিলো ৭৭.৭ শতাংশ। ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে এই ভোটের হার ছিলো ৭৬.৬২ শতাংশ। ২০১৯ ও ২০২৪ মাঝে আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন হয়েছিলো।     

এবারের নির্বাচনে আসানসোল কেন্দ্রের মধ্যে যে সাতটি বিধান সভা আছে, তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি ভোট পড়েছে পান্ডবেশ্বরে ৭৬.৪৭ শতাংশ। এই বিধানসভার বর্তমান বিধায়ক হলেন পশ্চিম বর্ধমান জেলা তৃনমুল কংগ্রেসের সভাপতি নরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী। সবচেয়ে কম ভোটের হার হয়েছে আসানসোল উত্তর বিধান সভায় ৭১.১৬ শতাংশ। এই কেন্দ্রের বিধায়ক হলেন রাজ্যের আইন ও শ্রম মন্ত্রী মলয় ঘটক। পান্ডবেশ্বরের পরে ভোট শতাংশের হারে দ্বিতীয় বারাবনি। সেখানে ভোটের হার ৭৪.০২ শতাংশ। এই কেন্দ্রের বিধায়ক হলেন আসানসোল পুরনিগমের মেয়র বিধান উপাধ্যায়। রানিগঞ্জ ও জামুড়িয়া বিধানসভায় ভোট পড়েছে যথাক্রমে  ৭৩.৮১ ও ৭৩.৬৬ শতাংশ। এই দুই কেন্দ্রের বিধায়ক হলেন তৃনমুল কংগ্রেসের তাপস বন্দোপাধ্যায় ও হরেরাম সিং। আসানসোল কেন্দ্রের সাতটি বিধান সভার মধ্যে দুটি বিজেপির দখলে আছে। সেগুলি হলো আসানসোল দক্ষিণ ও কুলটি। এই দুটিতে এবারে ভোটের হার হলো ৭২.০২ ও ৭২.৭০ শতাংশ। এই দুই বিধানসভার বিধায়ক হলেন অগ্নিমিত্রা পাল ও ডাঃ অজয় পোদ্দার।

২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে ৬ লক্ষ ৩৩ হাজার ৩৭৮ ভোট পান বিজেপির প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়। তার বিরুদ্ধে তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছিলেন মুনমুন সেন। তিনি পেয়েছিলেন ৪ লক্ষ ৩৫ হাজার ৭৪১।
কিন্তু ২০২১ সালে বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ায় আসানসোল কেন্দ্রে উপনির্বাচন হয়। ২০২২ সালে উপনির্বাচনে জয়ী হন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী শত্রুঘ্ন সিনহা। তিনি ৬ লক্ষ ৫৬ হাজার ৩৫৮ ভোট পেয়েছিলেন। তার ভোট পাওয়ার হার ছিল ৫৬.৬২ শতাংশ। এই উপনির্বাচনে পরাজিত হন বিজেপির প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পাল। তিনি ৩ লক্ষ ৫৩ হাজার ১৪৯টি ভোট পেয়েছিলেন। শতাংশের হারে তা ৩০.৪৬ । সিপিএমের হয়ে প্রার্থী হয়েছিলেন পার্থ মুখোপাধ্যায়। তিনি ৯০ হাজার ৪১২টি ভোট পেয়েছিলেন।



২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে আসানসোল থেকে জয়ী হয়েছিলেন প্রথমবার প্রার্থী হওয়া বিজেপির বাবুল সুপ্রিয়। তিনি ভোট পেয়েছিলেন ৪ লক্ষ ১৯ হাজার ৯৮৩। ভোটের শতাংশে তা ৩৬.৭৫ ।
সেবার তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী ছিলেন দোলা সেন। তিনি ভোট পেয়েছিলেন ৩ লক্ষ ৪৯ হাজার ৫০৩। ভোটের হারে তা ৩০.৫৮ শতাংশ।
সিপিএমের হয়ে প্রার্থী হয়েছিলেন বংশগোপাল চৌধুরী। তিনি ভোট পেয়েছিলেন ২ লক্ষ ৫৫ হাজার ৮২৯। তার ভোট পাওয়ার হার ছিল ২২.৩৯ শতাংশ।



তার আগে ২০০৯ সালে আসানসোল লোকসভা কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়েছিলেন সিপিএমের প্রার্থী বংশগোপাল চৌধুরী। তিনি মোট ৪ লক্ষ ৩৫ হাজার ১৬১ ভোট পেয়েছিলেন। ভোটের হার ছিল ৪৮.৬৯ শতাংশ।তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী হয়েছিলেন মলয় ঘটক। তিনি ভোট পেয়েছিলেন ৩ লক্ষ ৬২ হাজার ২০৫। ভোটের হার ছিল ৪০.৫৩ শতাংশ। বিজেপির প্রার্থী হয়েছিলেন সূর্য রায়। তিনি মাত্র ৪৯ হাজার ৬৪৬ ভোট পেয়েছিলেন।

Leave a Reply