আসানসোলের বিবি কলেজের উদ্যোগে মাইথনের সিধাবাড়িতে ” গ্রীণ এনভায়রনমেন্ট” বিষয়ক জাতীয় কর্মশালার আয়োজন

বেঙ্গল মিরর, সৌরদীপ্ত সেনগুপ্ত, আসানসোল , ২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৯::  বরাকর নদীর মাইথন জলাধার সংলগ্ন পশ্চিম বর্ধমানের সালানপুর এর কাছে সিধাবাড়ি তে আজ  আসানসোল বি বি কলেজের ভূগোল বিভাগের আয়োজনে

riju advt

একদিনের ” গ্রীণ এনভায়রনমেন্ট” বিষয়ক জাতীয় কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছিল। উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের বিশিষ্ট নদী ও পরিবেশ কর্মী এবং রাজ্য নদী বাঁচাও কমিটির আহ্বায়ক তুহিন শুভ্র মন্ডল, বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও ভূগোলবিদ ড: মলয় মূখোপাধ্যায়, বি .বি কলেজের অধ্যক্ষ ড: অমিতাভ বসু ।নদী ও পরিবেশের বন্ধু হবার এই কর্মশালায় অংশ নিয়েছিল আসানসোল বি বি কলেজের ছাত্র- ছাত্রীরা সহ অন্যান্য কলেজের প্রায় একশো ছাত্রী এবং বিভিন্ন কলেজের অধ্যাপক- অধ্যাপিকারা।

     মূল ভাবনা যার সেই বিশিষ্ট নদী ও পরিবেশকর্মী এবং রাজ্য নদী বাঁচাও কমিটির আহ্বায়ক তুহিন শুভ্র মন্ডলকে এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন ,” বিশ্ব উষ্ণায়ন, অনিয়মিত জলবায়ু পরিবর্তন আর দূরের নয় কাছের বিষয়। এছাড়াও প্লাস্টিক দূষণ, জল সংকটের মোকাবিলা, গাছ রক্ষা, নদী রক্ষা, জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণের কাজে পরিবেশের বন্ধু হিসাবে ছাত্রীদেরই তৈরি করতে হবে।আসানসোল বি বি কলেজের ভূগোল বিভাগকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানান তিনি। তিনি আরো বলেন,”আমাদের সবাই কে সবুজ অভ্যাস, সবুজ মন সর্বাগ্রে তৈরি করতে হবে সবুজ পরিবেশের লক্ষ্যে।”
 এই কর্মশালার আয়োজক ভূগোল বিভাগের অধ্যাপিকা চন্দনা বর্মন বলেন- ” নদী- প্রকৃতির কাছে গিয়ে সবুজ পরিবেশের কথা বলা- ভাবনাটা শুনেই ভাল লেগেছিল।আগামীতেও এমন উদ্যোগ নেবার কথা মাথায় থাকলো।”

ড: মলয় মুখোপাধ্যায় তাঁর মূল্যবান বক্তব্য তুলে ধরেন ছাত্রছাত্রীদের সামনে এবং বিদেশের থেকে আহরণ করা করা কিছু অভূতপূর্ব অভিজ্ঞতা সবার সামনে তুলে ধরেন। তার মধ্যে লন্ডনের টেমস নদী অথবা আমেরিকার আরিজোনার গ্র্যান্ড ক্যানিয়ন থেকে পাওয়া অভিজ্ঞতাও ছিল উল্লেখযোগ্য।
এরপর ছাত্রছাত্রীরা একটি নাটকের মাধ্যমে সবার সামনে গাছ কাটার কুফল এবং পরিবেশের ওপর তার যে প্রতিক্রিয়া সেটি সুন্দরভাবে উপস্থাপন করে।
মোটের ওপর এই অসাধারণ কর্মশালা ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে নদী ও পরিবেশকে বাঁচাতে আরো সুষ্ঠ চেতনার উদ্ভব ঘটাবে এবং তারা তাদের চারপাশের মানুষদের কাছে এই বিষয়গুলো অবহিত করবে এটাই আশা করা যায়।