করোনা ভাইরাস আতঙ্কের জেরে আপাতত রাজ্যে পুরভোট হচ্ছে না

বেঙ্গল মিরর, কলকাতা, ১৬ ই মার্চ,২০২০, সৌরদীপ্ত সেনগুপ্ত: সারা দেশের জনগন এখন  করোনা ভাইরাসের আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে। আর সেই কারণে আপাতত রাজ্যে পুরভোট হচ্ছে না। এই কথা জানিয়ে দিল রাজ্য নির্বাচন কমিশন। সোমবার ছিল পুরভোট নিয়ে সর্বদল বৈঠক। সেই বৈঠকের পরে কমিশনের পক্ষে জানানো হয়েছে, ‘‘পুরভোটের জন্য কমিশনের সমস্ত প্রস্তুতি সারা।

riju advt

কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতির জেরে এবং রাজ্য সরকার ও রাজনৈতিক দলগুলির ইচ্ছা অনুসারে আপাতত পুরভোট হচ্ছে না।’’

  এরই  মধ্যে রাজ্যে করোনা সংক্রমণ রুখতে বিভিন্ন পদক্ষেপ করেছে সরকার। যে কোনও ধরনের জমায়েতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এর জেরে পুরভোট পিছিয়ে যাওয়ার জল্পনা ছিলই। সেই মতোই এদিন সর্বদল বৈঠক ডাকে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য নির্বাচন কমিশন। সেই বৈঠকের পরেই এই ঘোষণা করা হয়েছে। বলা হয়েছে, ১৫ দিন পরে ফের বৈঠকে বসে পরিস্থিতি আলোচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।
  নবান্ন সূত্রের খবর, কলকাতা ও হাওড়া কর্পোরেশনে ভোটের নির্ঘণ্ট এক প্রকার প্রায় চূড়ান্ত করে ফেলেছিল রাজ্য নির্বাচন কমিশন। ঠিক ছিল যে আগামী ১৮ তারিখ সাংবাদিক বৈঠক করে ভোটের দিন ঘোষণা করা হবে। তার আগে ১৬ মার্চ সোমবার সর্বদল বৈঠক হবে। ভোট হবে ১৫ এপ্রিল।
   কিন্তু এরই মধ্যে গতকাল থেকে রাজ্যে অন্যতম বিরোধী দল বিজেপির নেতারা বলতে শুরু করেন যে করোনাভাইরাসের প্রকোপ যেরকম ছড়িয়েছে তাতে ভোট হবে কী করে? বিজেপি নেতা মুকুল রায় বলেন, সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কায় রাজ্যের সব স্কুলে ছুটি দিয়ে দিয়েছে সরকার। বেশ কয়েকটি রাজ্যে বিধানসভাও স্থগিত করা হয়েছে। এর মধ্যে ভোট করানো মুশকিল। কারণ, ভোটের লাইনে দাঁড়িয়েও সংক্রমণ ছড়াতে পারে। এর পরে ভোট পিছনো উচিত বলে দাবি তোলে তৃণমূল কংগ্রেসও। আর ঠিক এই সূত্র ধরেই বৈঠকের পর আপাতত রাজ্যে নির্বাচন হচ্ছে না তা জানিয়ে দেওয়া হয়।