গোটা রাজ্যের সঙ্গে আসানসোলে করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় শুরু লক ডাউন; জনতার সেবায় পুর নিগমের কন্ট্রোল রুম এবং টোল ফ্রি নম্বর চালু :

bengal mirror,, ২৪ শে  মার্চ ২০২০, সৌরদীপ্ত সেনগুপ্ত :
 করোনা ( COVID -19) ভাইরাস সংক্রমণ মোকাবিলায় গোটা রাজ্য জুড়ে সোমবার ঠিক বিকাল পাঁচটা থেকে শুরু হয়েছে লক ডাউন। সরকারি অর্ডার অনুযায়ী এই লক ডাউন চলবে আগামী ২৭ মার্চ রাত বারোটা পর্যন্ত। সমস্ত রাজ্যের অন্যান্য জেলাগুলোর মত পশ্চিম বর্ধমান জেলাতেও লক ডাউন হবে।

riju advt

আর ঠিক এই পরিস্থিতিতে আসানসোল পুরনিগম পুরবাসীদের কাছে পরিষেবা পৌঁছে দিতে সক্রিয় ভূমিকা নেবে।
এই মর্মে সোমবার বিকালে পুরভবনে এক সাংবাদিক সম্মেলনে মেয়র জিতেন্দ্র তেওয়ারি বলেন, লক ডাউনকে সামনে রেখে মঙ্গলবার থেকে আসানসোল পুরনিগমে চালু করা হচ্ছে একটা কন্ট্রোল রুম । আগামী চারদিন এই কন্ট্রোল রুম চালু থাকবে। ২৪ ঘন্টার এই কন্ট্রোল রুমে যোগাযোগের জন্য দুটি টোল ফ্রি নম্বর (১৮০০৩৪৫৩৩৯৭ ও ১৮০০১২০৪১২৫) খোলা হয়েছে।

প্রতিদিন দু’ঘন্টা মেয়র নিজে এই কন্ট্রোল রুমে থাকবেন। এছাড়াও দুদিন করে এই কন্ট্রোল রুমে থাকবেন দুই মেয়র পারিষদ পূর্ণশশী রায় ও অভিজিৎ ঘটক।

মেয়র বলেন,  আসানসোল পুরনিগমের ১০৬ টি ওয়ার্ডকে ৭টি জোনে ভাগ করা হয়েছে। প্রতিটি জোনের জন্য রেপিড রেসপন্স টিম করা হয়েছে। সেই টিমে চিকিৎসক ছাড়াও অন্যান্যরা রয়েছেন। আসানসোল পুরনিগমে এ্যাম্বুলেন্স রাখা হয়েছে। কেউ কোন রকম সমস্যায় পড়লে, টোল ফ্রি নম্বরে ফোন করে তা জানাতে পারেন। পুর কতৃপক্ষ সঙ্গে সঙ্গে পদক্ষেপ নেবে। মেয়র বলেন, এই রোগের মোকাবিলায় রাজ্য সরকার লক ডাউন করেছে। তা মেনে চলতে, কাউকে প্রয়োজন ছাড়া না বাড়ির বাইরে বেরোতে অনুরোধ করছি। তাহলেই একমাত্র এই রোগের হাত থেকে রক্ষা পাবেন। মেয়র আরো বলেন, যেসব পুর কর্মী এই সময়ে কাজ করবেন, তাদেরকে আলাদা করে ৫০০ টাকা করে ইনসেন্টিভ দেওয়া হবে।

  এদিকে বিকেল ৫ টায় আসানসোল বাস স্ট্যান্ডের সামনে ও সি ট্রাফিক তাপস কুমার দুবের নেতৃত্বে পুলিশ টিম অটো, টোটো চালকদের ধরে তাদের সতর্ক করেন।  ও সি ট্রাফিক  বলেন,  আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখতে তারা বদ্ধপরিকর এবং কোনরকম বিশৃঙ্খলা দেখলেই তারা  আইনানুগ ব্যবস্থা নেবেন”।