রাজস্থানের কোটা থেকে বাংলায় ফিরলো প্রায় আড়াই হাজার পড়ুয়া

বেঙ্গল মিরর, আসানসোলঃ পড়াশোনা করতে লক ডাউনের কারণে রাজস্থানের কোটায় গত দেড় মাসের বেশী সময় ধরে আটকে ছিলো পশ্চিমবঙ্গের কলকাতা সহ বিভিন্ন জেলার আড়াই হাজারেরও বেশী পড়ুয়া৷ শেষ পর্যন্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় উদ্যোগ নিয়ে আটকে পড়া সেইসব পড়ুয়াদের রাজ্যে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করেন।

riju advt

লক ডাউনের ৩৮ দিনের মাথায় শুক্রবার সকাল থেকে সেইমতো ৫০টির বাসে সেইসব পড়ুয়া বাংলা – ঝাড়খণ্ড সীমান্ত পার করে পশ্চিম বর্ধমান জেলায় আসে। সেইসব পড়ুয়ার এখানে আবার নতুন করে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়। তাদের দেওয়া হয় মাস্ক। পরে খাবার খাইয়ে তাদের রাজ্য সরকারের বাসে নিজেদের জেলায় পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়।

এদিন আসানসোলের ২নং জাতীয় সড়কের জামুড়িয়ার নিংঘায় সিটি রেসিডেন্সি হোটেলে ছিলেন আসানসোল পুরনিগমের মেয়র জিতেন্দ্র তেওয়ারি, আসানসোল দূর্গাপুরের পুলিশ কমিশনার সুকেশ জৈন ও পশ্চিম বর্ধমানের জেলাশাসক পূর্ণেন্দু কুমার মাজির নেতৃত্বে জেলার প্রশাসন ও পুলিশের আধিকারিকদের একটি দল ছিলেন। সেখানে তারা রাজস্থান থেকে আসা পড়ুয়াদের সঙ্গে দেখা করেন। তাদের সঙ্গে কথা বলার পাশাপাশি তাদের হাতে মাস্ক তুলে দেন।

নিজেরা দাঁড়িয়ে থেকে তাদের খাবার খাওয়ান। তারপর স্বাস্থ্য কর্মীরা পড়ুয়াদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করলে, তারা তাদের জেলায় ফিরে যাওয়ার তদারকি করেন। মেয়র বলেন, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় নিজের এই ব্যবস্থায় নজরদারি করছেন। সাংসদ অভিষেক বন্দোপাধ্যায় প্রতি মুহূর্তের খবর নিচ্ছেন। মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে পড়ুয়ারা আজ নিজেদের বাড়িতে ফিরতে পারছে। তাতে তাদের চেহারায় যে খুশি ফুটে উঠেছে  তা ভাষায় বর্ণনা করা যাবেনা। জেলা পুলিশ ও প্রশাসনের সবাই ডুবুরডিহি চেকপোস্টে থেকে পড়ুয়াদের যেখানে যেখানে পাঠানোর তা করছেন।