পেট্রোপণ্য এবং রান্নার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে আসানসোলের মেয়র তথা পশ্চিম বর্ধমান জেলা সভাপতি জিতেন্দ্র তিওয়ারির সপরিবারে ধর্না:

আসানসোল ,বেঙ্গল মিরর, সৌরদীপ্ত সেনগুপ্ত : তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে রান্নার গ্যাসের ঊর্ধ্বমুখী মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে আসানসোলের মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি নিজের বাসস্থানে সপরিবারে ধর্ণা প্রদর্শন করেন। ওই ধর্না মঞ্চে মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারির পত্নী শ্রীমতি চৈতালী তেওয়ারি উপস্থিত ছিলেন। সঙ্গে তৃণমূল নেতা রবিউল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

riju advt

ওই ধর্না মঞ্চ থেকে মেয়র তথা পশ্চিম বর্ধমান তৃণমূল জেলা সভাপতি জিতেন্দ্র তিওয়ারি বলেন, “বিগত বেশ কয়েক মাস ধরেই পেট্রোল-ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। একদিকে যেমন সাধারণ মানুষ কর্ণার সঙ্গে লড়াই করছেন আর ঠিক সেই সময় অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে জনতার নজরে আড়ালে 22 বার পেট্রোল-ডিজেলের দাম বাড়ানো হয়েছে । এই মূল্যবৃদ্ধি কার স্বার্থে করা হলো তার জবাব প্রধানমন্ত্রী দিন। পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির দরুন আগে থেকেই সাধারণ মানুষের নাজেহাল অবস্থা আরো ত্বরান্বিত হল। কোল ইন্ডিয়া, রেল প্রভৃতি সংস্থা বেসরকারি হাতে দিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এমতাবস্থায় যখন প্রধানমন্ত্রী সরকারি সংস্থাগুলোর উন্নতি করতে পারছেন না সরকার চালাতে পারছেন না তখন তার ইস্তফা দেওয়া উচিত।প্রধানমন্ত্রী যে সমস্ত সরকারি সংস্থাগুলোর বেসরকারিকরণ করছেন সেগুলোর একটি তিনি নিজ হাতে তৈরি করেন নি। সরকারি সংস্থাগুলো বিজেপির পয়সায় তৈরি হয়নি সেগুলি সাধারণ মানুষের অর্থে তৈরি হয়েছে। বিগত সরকার এই সমস্ত কোম্পানি গুলো তৈরি করেছেন এবং আপনি এগুলো বেসরকারি হাতে বিক্রি করে দিচ্ছেন। সরকারি পদক্ষেপের যদি রোলব্যাক না করেন তাহলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে বড় ধরনের আন্দোলন সংগঠিত করা হবে।”