RANIGANJ-JAMURIA

প্রবল গ্রীষ্মে কুয়োতে মোবিল, পুকুরে বিষ, এটা কি ভোট পরবর্তী হিংসা ?

বেঙ্গল মিরর, চরণ মুখার্জী,  জামুড়িয়া : লোকসভা নির্বাচনের পরপরই এবার ভোট পরবর্তী হিংসা ছড়ানোর অভিযোগ তুলে, জামুড়িয়ার বাহাদুরপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের পুরাতন জামশোল এলাকার বেশ কিছু মানুষজন। গ্রামের সরকারি কুয়োয়, গাড়ির পোড়া মোবিল ঢেলে, পানীয় জল নষ্ট করা, পি এইচ ই  এর জল সরবরাহের কল ভেঙে দেওয়া , এলাকার বাসিন্দাদের বসে বৈঠক করা স্থানে পোড়া মবিল ফেলে দেওয়া, এমনকি পুকুরের জলে বিষ ঢেলে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ, বেশ কিছু গ্রামবাসীর। তারাই এদিন দাবি করে, রাতের অন্ধকারে কে বা কারা তাদের সকলের ব্যবহার করা সরকারি কুয়োয়, এ ধরনের মবিল ফেলে দেওয়ায়, এলাকায় তীব্র জল কষ্টের সম্মুখীন হতে হচ্ছে ।

এই সকল কাজ,  দুষ্কৃতকারীদের বলেই অভিযোগ তাদের। উল্লেখ্য নির্বাচনের ভোট পরবর্তী হিংসার ঘটনা জামুরিয়ায় এই প্রথম নয়, এর আগেও পূর্বের পঞ্চায়েত নির্বাচনে, ভোট পর্ব মিটে যাওয়ার পর, সিপিএমের  পরাজয়ের ঘটনা সামনে আসতেই জামুড়িয়ার মদনতোড় গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় বাড়িঘরে আগুন জ্বালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে, সে সময়ও বেশকিছু সিপিএম কর্মী সমর্থকদের ধানের পালয়ে আগুন লাগিয়ে দেওয়া, পুকুরের জল ব্যবহার করতে নিষেধ করা, থেকে শুরু করে , কলের জল ব্যবহার করতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। এবারও সেরকমই অভিযোগ তুলে পানীয় জল ব্যবহারে, বাধা দেওয়ার অভিযোগ তুলল গ্রামবাসী।

শনিবার এ বিষয়ে জামুড়িয়া থানার কেন্দা ফাঁড়িতে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এ বিষয়ে জামুড়িয়ার প্রাক্তন বিধায়ক তথা লোকসভা নির্বাচনের বাম মনোনীত প্রার্থী জাহানারা খান সরব হয়েছেন। তিনি এদিন এই অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে,  এই ঘটনা ঘটানোর সঙ্গে যুক্ত দোষীদের উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। যদিও এ বিষয়ে তৃণমূল নেতৃত্ব দাবি করেছেন, এই অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। নেতৃত্বের দাবি এটি রাজনৈতিক কোন সমস্যা নয়, গ্রাম্য সমস্যা, এই সমস্যার সমাধানের জন্য তারা দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

Leave a Reply