আসানসোলে খনিতে চাকরি করতে যাওয়ার পথে কর্মীকে পুলিশের লাঠি মারার অভিযোগ / ক্ষোভ

বেঙ্গল মিরর, রাজা বন্দোপাধ্যায়, আসানসোল, ২৫ মার্চঃ করোনা ভাইরাসের মোকাবিলায় দেশজুড়ে লক ডাউনের মধ্যে কয়লা উৎপাদন অব্যাহত আছে রাষ্ট্রায়ত্ব কয়লা উত্তোলনকারী সংস্থা ইসিএলের বিভিন্ন খনিতে । আর সেই কারনে খনি কর্মীরা খনিতে খনিতে কাজ করতে যাচ্ছেন সকাল, দুপুরে ও রাতে।

riju advt

কিন্তু অভিযোগ, এইসব খনি কর্মীদের খনিতে কাজে যাওয়া ও আসার পথে পুলিশের তাড়া খেতে হচ্ছে। অনেককে আবার পুলিশের লাঠির মারও খেতে হচ্ছে বলে অভিযোগ । যা নিয়ে ক্ষোভে ফুঁসছেন খনি কর্মীরা ।

বুধবার সকালে এইভাবেই ইসিএলের কেন্দা এরিয়ার ছড়রা কোলিয়ারির কর্মী পূর্ণেন্দু মণ্ডলকে পুলিশের হাতে আক্রান্ত হতে হয়। জানা গেছে , তারা পিঠে ও হাতে লাঠির আঘাত লাগে। জখম হন তিনি। পরে কোলিয়ারিতে সেই খবর যেতেই ক্ষোভে ফুঁসতে শুরু করেন অন্য কর্মীরা।  অবিলম্বে খনিতে আসা ও যাওয়ার পথে  নিরাপত্তার দাবি তোলেন তারা। অভিযোগ,  রাস্তায় কাউকে দেখলেই বেপরোয়াভাবে পুলিশ লাঠি চালাচ্ছে। কী কারণে তারা রাস্তায় বেরিয়েছেন, তা পুলিশ জানতে চাইছে না পুলিশ। এমনকি তাদের পরিচয়পত্র দেখতে চাওয়া হচ্ছে না। কর্মীদের দাবি, কয়লা উৎপাদন বন্ধ হলে রাজ্যে বিদ্যুৎ উৎপাদন থমকে যাবে। পাল্টা হিসাবে তাদের হুঁশিয়ারি,  এই ধরণের পুলিশি অত্যাচার বন্ধ করা না হলে কয়লা খনির উৎপাদন বন্ধ করে দেওয়া হবে । 
অন্যদিকে, কর্মীদের আরো অভিযোগ, তাদেরকে মাস্ক বা স্যানিটাইজার কোনও কিছুই দেওয়া হয়নি ।
ইসিএলের ওরফে এক আধিকারিক এদিন বলেন, কর্মীদের অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।