২৪ ঘন্টার মধ্যে ভোল বদল, পোষ্ট করে ক্ষমাপ্রার্থী, রাজ্যপাল সঙ্গে দেখা করলেন জিতেন্দ্র তেওয়ারি

বেঙ্গল মিরর, রাজা বন্দোপাধ্যায়, আসানসোল, ২১ সেপ্টেম্বরঃ কলকাতার রাজভবনে গিয়ে মঙ্গলবার রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের সঙ্গে দেখা করলেন আসানসোলের বিজেপি নেতা জিতেন্দ্র তেওয়ারি । রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করার পরে আসানসোল পুরনিগমের প্রাক্তন মেয়র তথা বিধায়ক জিতেন্দ্র তেওয়ারি বলেন, সৌজন্যমুলক সাক্ষাৎ হয়েছে রাজ্যপালের সঙ্গে। অন্যসব আলোচনার সঙ্গে তার সঙ্গে আসানসোল উন্নয়ন নিয়ে রাজ্যপালের কথা হয়েছে।
জানা গেছে, এদিন একইসঙ্গে জিতেন্দ্র তেওয়ারি কলকাতায় বিজেপি সদর দপ্তরে গিয়ে সোমবারই দলের রাজ্য সভাপতির দায়িত্ব পাওয়া সাংসদ সুকান্ত মজুমদারের সঙ্গে দেখা করেন। তাকে তিনি পুষ্পস্তবক দিয়ে সম্বর্ধনা জানান।


প্রসঙ্গতঃ, বেশকিছু দিন, জিতেন্দ্র তেওয়ারি রাজনীতি কর্মকাণ্ড থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে রেখে আসানসোল ছেড়ে কলকাতায় চলে যান। তিনি নিজেই বলেছিলেন, কলকাতায় থাকবো ও হাইকোর্টে আইনজীবী হিসাবে প্র্যাকটিস করবো। কিন্তু, সোমবার আচমকাই তিনি রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে আসানসোলে আসেন। আসানসোলে ২নং জাতীয় সড়ক লাগোয়া দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বিজেপির আসানসোল সাংগঠনিক জেলার ডাকা কার্যকর্তা বৈঠকে অংশ নেন। সেখানে তিনি রীতিমতো সমালোচনার সুরে সদ্য বিজেপি ছেড়ে তৃনমুল কংগ্রেসে যোগদান করা আসানসোলের সাংসদ প্রাক্তন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কে আক্রমণ করেন। পরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় গান গাওয়া প্রসঙ্গে রানু মন্ডলের সঙ্গে বাবুল সুপ্রিয়ের তুলনা করেন।

একজন রাজনৈতিক দলের নেতা হিসেবে একজন গায়কের গায়কী সত্বা নিয়ে কথা বলায় জিতেন্দ্র তেওয়ারি সমালোচনা শুরু হয়। এরপর সেই কথা বলার ২৪ ঘন্টার মধ্যেই ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে জিতেন্দ্র তেওয়ারি নিজের ভুল বুঝতে পেরে সোশাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করেন। সেই পোষ্টে তিনি বলেন, আমার কথায় বাবুল সুপ্রিয় কষ্ট পেলে আমি দুঃখীত। এরপর থেকে আমি তাকে শুধু রাজনৈতিক বিষয়েই আক্রমন করবো।

স্পঞ্জ আয়রন শিল্পের সঙ্গে যুক্ত ১ লক্ষ কর্মীদের বোনাস বাড়ল, ৫ অক্টোবরের আগেই দেওয়া হবে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *