আলাদাভাবে সরস্বতী পূজো করার দাবি কাজি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে,টিএমসিপির পতাকা হাতে বিক্ষোভ একাংশ পড়ুয়ার

বেঙ্গল মিরর, আসানসোল, রাজা বন্দোপাধ্যায় ও দেব ভট্টাচার্যঃ* আলাদাভাবে সরস্বতী পূজো করার দাবি উঠলো পশ্চিম বর্ধমান জেলার আসানসোলের কাজি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে। এই দাবি নিয়ে মঙ্গলবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে টিএমসিপি বা তৃনমুল কংগ্রেস ছাত্র পরিষদের পতাকা হাতে বিক্ষোভ দেখালো পড়ুয়াদের একাংশ।
বিক্ষোভ করা পড়ুয়াদের মধ্যে উর্মি কুমারী ও শাজিদ আব্বাস বলেন, আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ে আলাদা করে সরস্বতী পূজো করতে চাই। তার জন্য আমরা বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষের কাছে ফান্ড চাই। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ তার কোন অনুমতি দিচ্ছে না। আবার তারা বলছে ফান্ডও নেই। দেওয়া যাবে না। তাদের আরো দাবি, এই বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ পড়ুয়াদের কথা ভাবে না।

riju advt


যদিও বিশ্ববিদ্যালয় ও এক আধিকারিক সূত্রে জানা গেছে, সরকারি নিয়ম বা কোন রীতি নেই এইভাবে সরস্বতী পূজো করার। গত ৫ বছর ধরে সরস্বতী পূজোর দিন যেমন ” বিদ্যোৎসব ” পালন করা হয়ে আসছে। এবারেরও তা হবে। তারজন্য গত ২৩ জানুয়ারি থেকে আগামী ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত অফলাইন ও অনলাইনে নানা ধরনের কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। ঐ আধিকারিক আরো বলেন, এই বিস্তারিতভাবে কলেজের ওয়েবসাইটে দেওয়া হয়েছে। সরস্বতী পূজোর দিন অর্থ্যাৎ যে ” বিদ্যোৎসব ” পালন করা হবে, তাতে সব পড়ুয়াকে অংশ নেওয়ার আবেদন করা হয়েছে।

সব অনুষ্ঠানের দায়িত্ব থাকছে বিশ্ববিদ্যালয়ের এনএসএস বা ন্যাশানাল সার্ভিস স্কিমের সেল বা ইউনিট। তিনি বলেন, এখনো বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্বাচিত কোন ছাত্র সংসদ নেই। তাই কোন অনুষ্ঠানের ফান্ড দেওয়া সম্ভব নয়। যা হবে বিশ্ববিদ্যালয়ের তত্বাবধানেই। এক্ষেত্রেও তাই করা হচ্ছে।
এই প্রসঙ্গে টিএমসিপির পশ্চিম বর্ধমান জেলা কো-অর্ডিনেটর অভিনব মুখোপাধ্যায় বলেন, একটা সমস্যা হয়েছিলো। কিন্তু পড়ুয়া এদিন বিক্ষোভও দেখায়। তা মিটে গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *