করোনা পরিস্থিতিতে স্যানিটাইজারের ঘাটতি মেটানোর কাজে এগিয়ে এলো আসানসোলের বিবি কলেজ

বেঙ্গল মিরর, আসানসোল, ২৮ শে মার্চ , ২০২০, সৌরদীপ্ত সেনগুপ্ত: 
করোনা ভাইরাস ( COVID-19) যাতে  চারিদিকে সংক্রমন না ছড়ায় সেইকারণে নজিরবিহীনভাবে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ২১ দিনের দেশ জুড়ে লকডাউন চলছে।  
 নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে ভীষণভাবে চাহিদা বেড়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, হ্যান্ড ওয়াশ এবং মাস্ক এর। 

riju advt

বাজারে এই তিনটি জিনিসের চাহিদা এমন পর্যায়ে গেছে যাতে রীতিমত লাইন দিয়েও কোনো ওষুধের দোকানে পাওয়া যাচ্ছেনা। তবে 
সবচাইতে বেশি চাহিদা অ্যালকোহল যুক্ত হ্যান্ড   স্যানিটাইজারের। আর লকডাউন হবার কারণে দোকানে এবং দোকানের  সাপলায়ারের কাছে কোনো সাপ্লাই নেই। কারণ ট্রেন, বাস,  ট্রাক সমস্ত কিছু বন্ধ।
আর এই স্যানিটাইজারের চাহিদা মেটাতে এগিয়ে এল আসানসোলের বানওয়ারীলাল ভালোটিয়া কলেজ যা বি.বি কলেজ নামে খ্যাত।

স্যানিটাইজারের চাহিদা মেটাতে  বি .বি কলেজের মাননীয় অধ্যক্ষ ডঃ অমিতাভ বসুর পরিচালনায় কলেজের ল্যাবরেটরিতে প্রস্তুত করা হলো বিশেষভাবে তৈরী স্যানিটাইজার। 
বি. বি কলেজের নিজস্ব ল্যাবে তৈরী এই স্যানিটাইজার  আসানসোলে জরুরি পরিষেবার সাথে যুক্ত মানুষজনের , কলেজের কর্মী এবং ছাত্রী ছাত্রীদের প্ৰিয়জনে কাজে লাগবে এবং উদ্ভুত পরিস্থিতিতে ঘাটতি মেটাবে।
এই স্যানিটাইজার তৈরির সময় অংশগ্রহণ করে পশ্চিম বর্ধমান জেলা তৃণমূল ছাত্র পরিষদ এর কার্যকরী সভাপতি অভিনব মুখার্জী,
 আসানসোল নর্থ ব্লক তৃণমূল ছাত্র পরিষদ এর কার্যকরী সভাপতি শিলাদিত্য রায়,
কলেজের ছাত্র এবং আসানসোল দক্ষিণ তৃণমূল ছাত্র পরিষদ এর সাংগঠনিক সম্পাদক তিলন সাধু, শাওন দাস যে ছাত্র এবং হিরাপুর ব্লক তৃণমূল ছাত্র পরিষদ এর সম্পাদক।
  করোনা ভাইরাস  পরিস্থিতিতে জনমানসে স্যানিটাইজার ঘাটতি মেটানোর জন্য বি বি কলেজের অধ্যক্ষ, রসায়ন ল্যাবের কর্মী ও ছাত্র সংসদের এই উদ্যোগ অনেকটা  নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয় কাজ যা বলার অপেক্ষা রাখেনা।