করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় আসানসোল দক্ষিণ থানা এবং মাড়োয়ারি যুব মঞ্চের যৌথ প্রয়াসে করা হল সোশ্যাল ডিস্টান্সিং মার্কিং

বেঙ্গল মিরর,আসানসোল, ২৮ শে মার্চ, ২০২০, সৌরদীপ্ত সেনগুপ্ত :
করোনা সংক্রমণের কারণে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী ২১ দিনের লকডাউন চলছে দেশ জুড়ে। সংক্রমণ যাতে ছড়িয়ে না পড়ে সেকারণে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা এবং পুলিশের তরফ থেকে বিভিন্ন কর্মসূচি নেওয়া হচ্ছে।
গত বৃহস্পতিবার ২৬ শে মার্চ আসানসোল দুর্গাপুর কমিশনারেটের অধীন আসানসোল দক্ষিণ থানার পুলিশ এবং মারওয়ারী যুব মোর্চার আসানসোল সিটি শাখার সদস্যদের সম্মিলিত প্রয়াসে আসানসোলের বিভিন্ন জায়গায় বিশেষ করে ওষুধের দোকান, সবজির ও ফলের দোকান এবং মুদিখানার দোকানগুলোর সামনে সোশ্যাল ডিস্টান্সিং মার্কিং করে দেওয়া হয়। এরই সঙ্গে সমস্ত দোকানদারদের অনুরোধ করা হয় যে তারা যেনো দোকানের বাইরে স্যানিটাইজার অথবা হ্যান্ড ওয়াশ অথবা সাবান এবং বালতি রাখেন দোকানে প্রবেশ করার আগে যাতে তারা হাত ধুয়ে নেন। এরই সঙ্গে তারা যাতে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করেন সে বিষয়ে তাদের সচেতন করা হয়। 

riju advt

 দোকানদাররা এবং আম জনতা সবাই এই করোনা ভাইরাস মোকাবিলার পদক্ষেপের গুরুত্ব বুঝে ওই সমস্ত নিয়মাবলি মেনে চলার সংকল্প গ্রহণ করেন।
 এই সোশ্যাল ডিস্টান্সিং কর্মসূচি চলার সময় পুলিশের আধিকারিকরা উপস্থিত থাকার সঙ্গে যৌথভাবে ছিলেন “আসানসোল মাড়োয়ারি যুব মোর্চা”- র আনন্দ পারিক, প্রেসিডেন্ট সুদীপ আগরওয়াল, কোষাধক্ষ্য নবীন আগরওয়াল এবং চন্দন আগরওয়াল উপস্থিত ছিলেন। 

সোশ্যাল ডিস্টান্সিং মার্কিং করা হয় সি এম সি ক্লাব মোড়, এন এস রোড, রামধনী মোড়, আসানসোল জেলা হাসপাতাল, গড়াই রোড,আগুরি পাড়া, জনতা মেডিক্যাল, গোধূলি মোড়, মূর্গাসোল, মালতী মঙ্গল প্লাজা প্রভৃতি জায়গায় এবং দোকানের সামনে।

  করোনা ভাইরাসকে মোকাবিলা করতে আসানসোল দক্ষিণ থানার পুলিশ অধিকারিকগন এবং আসানসোল মারওয়াড়ি যুব মোর্চার এই যৌথ প্রয়াস যে সামাজিক দায়িত্ববোধকে আগামী প্রজন্মের কাছে দৃষ্টান্ত হিসেবে তুলে ধরবে তা বলার অপেক্ষা রাখেনা।