রাজারহাট গোপালপুর বিধানসভা অঞ্চলে মোট ১১ টি ক্যাম্পে ৩৭৩ জন রক্তদাতা রক্ত দিয়েছেন

বেঙ্গল মিরর, রাজারহাট,(উত্তর ২৪ পরগনা), সৌরদীপ্ত সেনগুপ্ত/ দলজিত্ সিংহ  ২৯ শে এপ্রিল, ২০২০, 

riju advt

 দেশজুড়ে জারি রয়েছে লকডাউন । লকডাউন ঘোষণার আগে থেকেই করোনা আতঙ্কে রক্তদান শিবির খুব কমই হচ্ছে ৷ চরম রক্তসংকটে ভুগছে রাজ্যের হাসপাতালগুলো। ব্লাডব্যাঙ্ক গুলিতে রক্তের চাহিদা মারাত্মক আকার নিয়েছে।
 রক্তের এই নজিরবিহীন  আকাল মেটাতে এগিয়ে এল উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বিধাননগর মিউনিসিপ্যাল করপোরেশন ৮ নং ওয়ার্ডের অন্তর্গত অর্জুনপুর পশ্চিমপাড়ার “আমরা সবাই ক্লাব” যা সত্যিই প্রশংসার অপেক্ষা রাখেনা।

   করোনা ভাইরাসের কারণে রক্তসঙ্কট দেখা দিয়েছে। এতে করোনা ছাড়াও অন্যান্য রোগে আক্রান্ত রোগীরা ভীষণভাবে রক্তের অভাবে ভুগছেন।
আজ সকাল থেকে মোট ৩০ ইউনিট রক্ত সংগৃহীত হয় যা করোনা পরিস্থিতির আবহে ভীষণভাবে প্রশংসনীয়।
 সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত এই রক্তদান শিবির চলে।  
   এই ব্লাড ক্যাম্পের উদ্যোক্তাদের মধ্যে ছিলেন রাজারহাট গোপালপুর বিধানসভা ক্ষেত্রের বিধায়ক ও রাজ্যের মন্ত্রী পূর্ণেন্দু বসু।
    সূত্রের খবর অনুযায়ী, আজ পর্যন্ত রাজারহাট গোপালপুর বিধানসভা অঞ্চলে মোট ১১ টি ক্যাম্পে ৩৭৩ জন রক্তদাতা রক্ত দিয়েছেন।

  এদিকে ক্লাবের পক্ষ থেকে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজ্যের মন্ত্রী এলাকার বিধায়ক পূর্ণেন্দু বসুকে ব্লাড ব্যাংক, রক্তদাতা, উদ্যোক্তা এবং এলিকার বাসিন্দার পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানানো হয়।
      সারা বিশ্বের সঙ্গে সঙ্গে ভারতবর্ষে করোনা যেভাবে থাবা বসাচ্ছে এবং এপ্রিলের গরম আবহাওয়ার মধ্যে উদ্ভুত রক্তসঙ্কটে “আমরা সবাই” ক্লাবের রক্তদানের উদ্যোগ সমাজের কাছে ওই ক্লাবের দায়বদ্ধতার প্রমাণ রাখে তা বলার অপেক্ষা রাখেনা।