দূর্গাপুরে ২৯ জুন মুখ্যমন্ত্রীর প্রশাসনিক সভা, বৈঠক করলেন জেলাশাসক

সব দপ্তরের কাজ খতিয়ে দেখতে পর্যালোচনা বৈঠক জেলাশাসকের

বেঙ্গল মিরর, আসানসোল, রাজা বন্দ্যোপাধ্যায় ও সৌরদীপ্ত সেনগুপ্তঃ জুন মাসের একবারে শেষ সপ্তাহে জেলা সফরে আসছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি আগামী ২৯ জুন দূর্গাপুরে পশ্চিম ও পূর্ব বর্ধমান জেলা নিয়ে প্রশাসনিক বৈঠক করবেন।
তাই তার আগে পশ্চিম বর্ধমান জেলার প্রশাসনিক স্তরে জোর তৎপরতা শুরু হয়েছে।
ঠিক এই মুহুর্তে গোটা জেলার বিভিন্ন দপ্তরের কাজ ঠিক কোন জায়গায় ও কি পরিস্থিতিতে আছে, তা খতিয়ে দেখতে বুধবার প্রশাসনিক স্তরে একটি রিভিউ বা পর্যালোচনা বৈঠক করলেন পশ্চিম বর্ধমানের জেলাশাসক এস অরুণ প্রসাদ।

আসানসোলে আসানসোল দূর্গাপুর উন্নয়ন পর্ষদ বা আড্ডার কনফারেন্স হলে হওয়া এই বৈঠকে জেলা পরিষদের সভাধিপতি সুভদ্রা বাউরি, অতিরিক্ত জেলাশাসক সঞ্জয় পাল, ডিপিআরডিও তমোজিৎ চক্রবর্তী, বিভিন্ন জনপ্রতিনিধি সহ সব দপ্তরের আধিকারিকরা উপস্থিত ছিলেন।
জেলাশাসক সব দপ্তরের আধিকারিকদের কাছে জানতে চান যে, ঠিক এই মুহুর্তে কোন এলাকায় কি কাজ হচ্ছে। কোন কোন কাজ শেষ হয়েছে বা আটকে আছে কিনা। যদি আটকে আছে, কেন তা আটকে আছে তাও জেলাশাসক জানতে চান। সালানপুর ও রানিগঞ্জ ব্লকের পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সহ অন্য জনপ্রতিনিধিরা এদিনের বৈঠকে এলাকায় পানীয়জল ও বিদ্যুতের সমস্যার কথা জেলাশাসককে বলেন।


জেলাশাসক বৈঠকে সব দপ্তরের আধিকারিকদের বড় কোন সমস্যা না থাকলে, মুখ্যমন্ত্রীর সভার আগে কাজ শেষ করার নির্দেশ দেন। পাশাপাশি তিনি সব দপ্তরকে আলাদা আলাদা করে কাজের খতিয়ান সহ রিপোর্ট তৈরীরও নির্দেশ দেন।
বৈঠকের শেষে জেলা সভাধিপতি বলেন, জেলার সব কাজ নিয়ে এদিনের বৈঠকে আলোচনা করা হয়েছে। বেশ কিছু এলাকার জনপ্রতিনিধিরা পানীয়জল ও বিদ্যুতের সমস্যার কথা বলেছেন। জেলাশাসক ঐসব দপ্তরের আধিকারিকদের বিষয়টি দেখতে বলেছেন। আগামী ২৯ জুন জেলায় মুখ্যমন্ত্রী আসছেন, তাই সব দপ্তরের কাজ নিয়ে এদিনের বৈঠকে আলোচনা করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.