“চায়না প্রোডাক্ট বয়কট করুন” আওয়াজ উঠল আসানসোল মাড়োয়ারি যুব সংঘের আয়োজিত চীনা হামলায় শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি অনুষ্ঠানে

বেঙ্গল মিরর, আসানসোল ১৯ শে জুন,২০২০, সৌরদীপ্ত সেনগুপ্ত:
চীনা আগ্রাসনের ও ভারতীয় জওয়ানদের ওপর হামলায় কুড়ি জন জওয়ান শহীদ হন। এরই প্রতিবাদে পশ্চিম বর্ধমানে রাষ্ট্রীয় মাড়োয়ারি যুব সংঘের আসানসোল শাখার তরফ থেকে আসানসোলের এন এস রোড এর নতুন ধর্মশালার সামনে শহীদদের ছবিতে ফুল এবং মোমবাতি জ্বালিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানানো হয়। এরই সঙ্গে রাস্তায় আগুন জ্বালিয়ে চীনা দ্রব্য বর্জনের প্রতীকী প্রতিবাদ প্রদর্শন করা হয়। অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আসানসোল করপোরেশনের ৪৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর উমা শ্রফ, জগদীশ কেডিয়া, সজ্জন জলুকা, জিতু সিং বিমল জালান , গোপাল বিজয়বর্গী , মুকেশ শর্মা, অনিল জালান প্রমুখ।

riju advt

রাষ্ট্রীয় মাড়োয়ারি যুব সংঘের তরফ থেকে ছিলেন প্রেসিডেন্ট বিকাশ আগারওয়াল, রোহিত শর্মা বিষ্ণু টেকরীওয়াল, অমন মাখারিয়া, বৃজেশ শর্মা, অমিত ঝুনঝুনওয়ালা, রওনক জালান, লালটু শর্মা আকাশ ভগৎ, রাকেশ আগারওয়াল প্রমুখ।

  এ বিষয়ে মাড়োয়ারি যুব সংঘের সদস্য রোহিত শর্মা বলেন, “চীনের হামলায় ভারতের কুড়ি জন জওয়ান শহীদ হয়েছেন। আমরা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করছি। আমরা অনুরোধ করছি সমগ্র ভারতবাসীকে চীনে তৈরি দ্রব্য বর্জন করার জন্য এবং ভারতে তৈরি দ্রব্য যত বেশি সম্ভব ব্যবহার করার জন্য।”

   এদিকে ৪৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর বলেন,” ভারত এবং চীনের সংঘর্ষে ভারতের অনেক জওয়ান জীবনের আহুতি দিয়েছেন। আমরা এ ঘটনায় চরম নিন্দা করছি এবং শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি জানাই। ভারতবর্ষের বাজার থেকে চীন প্রচুর মুনাফা অর্জন করে আর তাই চীনকে আর্থিকভাবে দুর্বল করার লক্ষ্যে আমরা এই মুহূর্ত থেকে চীনে তৈরি দ্রব্য বর্জন করছি এবং সবাইকে বর্জন করার আবেদন করা জানাচ্ছি।”