ASANSOL

সন্দেশখালি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীকে তোপ শত্রুঘ্ন সিনহার

স্বামীর মঙ্গল কামনায় পুজো পুনম সিনহার

বেঙ্গল মিরর, আসানসোল, রাজা বন্দ্যোপাধ্যায় ও সৌরদীপ্ত সেনগুপ্তঃ স্বামীর মঙ্গল কামনায় ভোটের দিন সকালে দূর্গা মন্দিরে পুজো দিলেন আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী শত্রুঘ্ন সিনহার স্ত্রী পুনম সিনহা। স্বামীর জেতার ব্যাপারে তিনি আগের মতো এদিনও আশাবাদী।  স্ত্রীর দেওয়া সেই পুজোর প্রসাদ খেয়ে দুপুরের দিকে ভোট দেখতে দলের নেতাদেরকে সঙ্গে নিয়ে বেরোন শত্রুঘ্ন সিনহা। তার আগে শত্রুঘ্ন সিনহা সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় উন্নয়ন বা কাজ করা নিয়ে বিজেপি প্রার্থী এসএস আলুওয়ালিয়াকে আক্রমণ করেন। একইসঙ্গে  সন্দেশখালি নিয়ে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহের সমালোচনা করেন।


প্রসঙ্গতঃ, আসানসোলের জিটি রোডের উষাগ্রামের একটি বেসরকারি হোটেলে রয়েছেন শত্রুঘ্ন সিনহা। সেখান থেকেই তিনি প্রচার করছেন। স্বামীর প্রচার শুরুর সময় মন্দিরে পুজো দিয়েছিলেন পুনম সিনহা। এদিন তার কোন ব্যতিক্রম হয়নি। এদিন সকালে তিনি হোটেলের পাশে দূর্গা মন্দিরে পুজো দেন। তারপর মন্দির থেকে হোটেলে ফিরে তিনি স্বামীর কপালে টিপ দেন। হাতের আঙ্গুলে আংটি ও কবজিতে তাগা পড়িয়ে দেন সংবাদ মাধ্যমের সামনেই। প্রসাদ দেন খাওয়ার জন্য। এই প্রসঙ্গে পুনম সিনহা বলেন, এই দিনটার গুরুত্ব আলাদা। স্বামীর মঙ্গল কামনায় পুজো দিয়েছি। আজ কি আলাদা কিছু হলো? পুনমদেবী বলেন, প্রতি দিন যেমন যোগা করে হালকা খাবার খেয়ে বেরোন, আজও তাই করেছেন। রাতে আমরা একসঙ্গে সবাই বসে খাবার খাই।


এদিকে, স্ত্রীর পুজো নিয়ে শত্রুঘ্ন সিনহা বলেন, পুনম এটা সবসময় করে। ও আমার মঙ্গল কামনা সবসময় চায়। একইসাথে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি আসানসোলের উন্নয়ন নিয়ে আক্রমণ করেন বিজেপি প্রার্থীকে। বলেন, এসএস আলুওয়ালিয়াকে কেন একবার দার্জিলিং থেকে দূর্গাপুর বর্ধমান, আবার সেখান থেকে আসানসোলে আনা হলো। উনি যদি কাজ করে থাকেন, তাহলে বারবার কেন্দ্র পরিবর্তন করতে হয় কেন? এদিন তিনি সন্দেশখালি নিয়ে আবারও প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীকে আক্রমণ করেন। বলেন, পুরোটাই বিজেপির তৈরি করা। বাংলা তথা দেশের মানুষেরা বুঝে গেছেন। ভোটে এর জবাব তারা পাবে।

Leave a Reply